কেরানীগঞ্জে আরবি পড়তে গিয়ে বাসায় ফেরেনি দুইবোন

19

ঢাকার কেরানীগঞ্জের জিনজিরা ইউনিয়নের পূর্ব বন্দ ডাকপাড়ার মসজিদে আরবি পড়তে গিয়ে নিখোঁজ হয়েছে আপন দুই বোন। সোমবার (১৯ জুলাই) সকাল ৭টায় তারা বাসা থেকে বের হয়ে আর বাসায় ফিরে আসেনি। এই প্রতিবেদন লেখার সময় পর্যন্ত তাদের দুজনের কোনো খোঁজ মেলেনি।

নিখোঁজ হওয়া দুজন হলো মারিয়া (০৮) ও ফারজানা (১০)। তারা দুজন মো. ফিরোজ (৩৫) ও রেনু বেগম(৩০) দম্পতির মেয়ে। ফিরোজ পেশায় সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনাল কুলিদের সরদার। নিখোঁজ ফারজানা ৪র্থ ও মারিয়া ২য় শ্রেনির ছাত্রী। তারা স্বপরিবারে পূর্ব বন্দ ডাকপাড়ার মুরাদ ডাক্তারের বাড়িতে ভাড়া থাকে।

শিশু দুটির বাবা মো. ফিরোজ জানান, সকাল ৬টায় বন্দ ডাকপাড়া মসজিদে নিয়মিত আরবি পড়া শুরু হয়। গতকাল আমার মেয়েরা বাসা থেকে দেরিতে বের হওয়ায় তার মা বকাবকি করে মসজিদে পাঠায়। সম্ভবত তারা মসজিদে পৌঁছানোর পর পড়ানো শেষ হয়ে গিয়েছিলো। পরে তাদের মায়ের ভয়ে আর বাসায় ফেরেনি। সকাল ১০টার পরও যখন তারা বাসায় না আসে তখন আমার স্ত্রী রেনু বেগম এদিক সেদিক খোঁজাখুজি করে না পেয়ে আমাকে বিকাল ৪টায় মোবাইল ফোনে বিষয়টি জানায়। পরে আমি এলাকার আসেপাশে সব জায়গায় খোঁজাখুজি সহ মাইকিং করি। পাশাপাশি আমাদের পরিচিত সবার বাসায় খবর নিয়ে জানতে পেরেছি তারা সেখানে নেই।

পরে কেরানীগঞ্জ মডেল থানায় বিষয়টি অবগত করে আজ মঙ্গলবার (২০ জুলাই) একটি সাধারণ ডায়েরি করেছি।তিনি আরো বলেন, নিখোঁজ মারিয়া বাসা থেকে বেড় হওয়ার সময় পড়নে ছিলো কালো থ্রী-পিছ তার উচ্চতা ৩ ফুটের মতো গায়ের রং ফর্সা ও ফারজানার পড়নে ছিলো পেস কালার জামা তার উচ্চতাও ৩ ফুটের মতো গায়ের রং শ্যামলা।

কেরানীগঞ্জ মডেল থানার এসআই সুব্রত বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, নিখোঁজ ছাত্রীদের পিতা এ ব্যাপারে থানায় একটি জিডি দায়ের করেছেন। বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে খতিয়ে দেখা হচ্ছে।