আজ ১লা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ :

লিভারপুলের অজেয় পথচলা থামাল ওয়েস্ট হ্যাম

অনলাইন ডেস্ক ॥ রেকর্ড টানা ২৫ ম্যাচ অপরাজিত থাকার আত্মবিশ্বাসে শুরুতেই চিড় ধরাল আলিসনের আত্মঘাতী গোল। মাঝে স্বস্তি ফিরলেও দ্বিতীয়ার্ধে দুর্দান্ত খেলা ওয়েস্ট হ্যাম ইউনাইটেডের সামনে প্রতিরোধ গড়তে পারল না লিভারপুল। মোহামেদ সালাহ, সাদিও মানে, দিয়োগো জটাদের বিবর্ণ ও ধারহীন পারফরম্যান্সে ভুলে যাওয়া হারের তেতো স্বাদ পেল ‘অলরেড’ খ্যাত দলটি।

ওয়েস্ট হ্যামের লন্ডন স্টেডিয়ামে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে রবিবার ৩-২ গোলে হেরেছে লিভারপুল। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ২৫ ম্যাচের অজেয় যাত্রা থামার সঙ্গে চলতি লিগে প্রথম হারের তেতো স্বাদও পেল ইয়ুর্গেন ক্লপের দল। তারা এর আগে সবশেষ হেরেছিল গত এপ্রিলে; চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার-ফাইনালের প্রথম লেগে রিয়াল মাদ্রিদের মাঠে ৩-১ গোলে।

চতুর্থ মিনিটে আলিসনের আত্মঘাতী গোলের পর প্রথমার্ধের শেষ দিকে সমতা ফেরান ট্রেন্ট অ্যালেকজ্যান্ডার-আর্নল্ড। পাবলো ফোরনালস ও কুর্ত জুমার গোলে ওয়েস্ট হ্যাম ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার পর শেষ দিকে ব্যবধান কমান দিভোগ ওরিগি।

প্রথমার্ধে অবশ্য বলের নিয়ন্ত্রণে আধিপত্য ছিল লিভারপুলের। কিন্তু ৬৯ শতাংশ সময় বলের নিয়ন্ত্রণে থাকলেও সালাহ-মানে-জটায় সাজানো আক্রমণভাগ ছিল না যথেষ্ট ধারাল। বিরতির আগে একটি মাত্র শট তারা লক্ষ্যে রাখতে সক্ষম হয় এবং তা থেকে গোলটি করেন অ্যালেকজ্যান্ডার-আর্নল্ড।

ওয়েস্ট হ্যাম প্রথমার্ধে কোনো শটই লক্ষ্যে রাখতে পারেনি! তবে, চতুর্থ মিনিটে আলিসনের ওই ভুলে এগিয়ে যায় তারা। কর্নার ফেরাতে গিয়ে অনেকটা লাফিয়ে ওঠা লিভারপুল গোলরক্ষকের গ্লাভস ছুঁয়ে বল জালে জড়ায়।

৪১তম মিনিটে অ্যালেকজ্যান্ডার-আর্নল্ডের দারুণ গোলে সমতায় ফেরে লিভারপুল। এই ইংলিশ ডিফেন্ডারের ছোট ফ্রি কিক সালাহ পা দিয়ে থামান। এরপর আর্নল্ডের ডান পায়ের শট দারুণভাবে বাঁক খেয়ে জালে জড়ায়। গোলরক্ষকের কিছুই করার ছিল না।

প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে ওয়েস্ট হ্যাম বেশ চাপ দেয় লিভারপুলের রক্ষণে। সুযোগও পেয়ে যায় দলটি; বাঁ দিক দিয়ে আক্রমণে ওঠা মিখাইল আন্টোনিওর সামনে ছিলেন কেবল গোলরক্ষক, কিন্তু এই জ্যামাইকান ফরোয়ার্ড তালগোল পাকিয়ে বল হারান।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে জমে ওঠে ম্যাচ। ৫০তম মিনিটে কর্নারে ক্রেইগ ডসনের হেড আলিসনকে ফাঁকি দিয়ে ক্রসবারে লেগে ফেরে। দুই মিনিট পর অ্যালেকজ্যান্ডার-আর্নল্ডের লং পাস ধরে অ্যান্ডি রবার্টসনের ক্রসে মানের ভলি সরাসরি যায় ওয়েস্ট হ্যাম গোলরক্ষক লুকাস ফাবিয়ানস্কির কাছে।

৫৬তম মিনিটে ডসনের দুর্বল হেড অনায়াসে ফেরান আলিসন। এরপর মানের পাস বাইরে মেরে হতাশা বাড়ান সালাহ। ৬৬তম মিনিটে ফের এগিয়ে যায় ওয়েস্ট হ্যাম। লিভারপুল মাঝমাঠে বল হারানোর পর জ্যারড বোয়েন গতিতে ডিফেন্ডারদের ছিটকে দিয়ে বেশ খানিকটা এগিয়ে থ্রু পাস বাড়ান বাঁয়ে থাকা ফোরনালসের উদ্দেশে। এই স্প্যানিশ মিডফিল্ডারের শট ঝাঁপিয়ে পড়া আলিসনের গ্লাভস ছুঁয়ে জালে জড়ায়।

৭৫তম মিনিটে কর্নারে দূরের পোস্টে থাকা কুর্ত জুমা দুরূহ কোণ থেকে হেডে লক্ষ্যভেদ করলে লিভারপুল কোণঠাসা হয়ে পড়ে।

সাত মিনিট পর অ্যালেকজ্যান্ডার-আর্নল্ডের পা ঘুরে পাওয়া বল প্রথম ছোঁয়ায় নিয়ন্ত্রণে নিয়ে শরীরটা ঘুরিয়ে বাঁ পায়ের শটে ব্যবধান কমান দিভোক ওরিগি।

দ্বিতীয়ার্ধের যোগ করা সময়ে অ্যালেকজ্যান্ডার-আর্নল্ডের ফ্রি কিকে মানের হেড দূরের পোস্ট ঘেঁষে বেরিয়ে গেলে হারের হতাশা সঙ্গী হয় লিভারপুলের।

১১ ম্যাচে ২২ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে আছে লিভারপুল। তাদের চেয়ে ১ করে পয়েন্ট বেশি নিয়ে গোল পার্থক্যে ম্যানচেস্টার সিটি দ্বিতীয় ও ওয়েস্ট হ্যাম তৃতীয় স্থানে রয়েছে। শীর্ষে থাকা চেলসির পয়েন্ট ২৬।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ :