আজ ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ :

বাজারে এলো ১২৫ মিসির টিভিএস রেইডার

 

স্টাফ রিপোর্টার: বাংলাদেশের তরুণদের জন্য বিশ্বের স্বনামধন্য টু-হুইলার প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান টিভিএস ১২৫ সিসি সেগমেন্টে বিভিন্ন ফিচার সংবলিত টিভিএস রেইডার লঞ্চ করেছে। তরুণদের জন্য প্রস্তুত এই মোটরসাইকেলে এলসিডি ডিজিটাল স্পিডোমিটার, থ্রি-ভ্যাল্ভ আই-টাচ স্টার্ট ইঞ্জিন, অ্যানিমেলিস্টিক এলইডি হেডল্যাম্পের মতো দারুণ সব ফিচার।

 

রোববার (৬ মার্চ) রাজধানীর বসুন্ধরা আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টারে এর উদ্বোধন করেন টিভিএস মোটর কোম্পানির হেড অব ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস এইচ জি রাহুল নায়াক। এসময় উপস্থিত ছিলেন- টিভিএস অটো বাংলাদেশ লিমিটেডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর (এমডি) জে. একরাম হুসেইন প্রমুখ।

 

 

 

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, এই সেগমেন্টের বাইকে প্রথমবারের মতো আন্ডার-সিট স্টোরেজ রয়েছে। এতে রয়েছে, বেস্ট-ইন-ক্লাস অ্যাকসিলারেশন, রিভার্স এলসিডি ক্লাস্টার ও অ্যানিমেলিস্টিক এলইডি হেডল্যাম্পস টিভিএস রেইডারকে দিয়েছে অনেক স্পোর্টি ও স্টাইলিশ লুক।

 

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এইচ জি রাহুল নায়াক বলেন, বাংলাদেশের দ্রুত বিকশিত হওয়া টু-হুইলার মার্কেটে ১২৫সিসির টিভিএস রেইডার লঞ্চ করতে পেরে আমরা আনন্দিত। এই দেশে ব্যক্তিগত পরিবহনের চাহিদা ক্রমশই বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই আমাদের মিলেনিয়াল ও জেন জি ক্রেতা ও গ্রাহকদের জন্য আমরা প্রতিনিয়তই দারুণ সব ফিচার ও উন্নত প্রযুক্তি সমৃদ্ধ পণ্য নিয়ে আসার চেষ্টা করছি। আমি নিশ্চিত যে আমাদের তরুণ গ্রাহকরা টিভিএস রেইডারের স্বকীয়তা অনেক পছন্দ করবে।

টিভিএস অটো বাংলাদেশ লিমিটেডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর জে. একরাম হুসেইন বলেন, বাংলাদেশের গ্রাহকরা সবসময়ই টিভিএস-এর নতুন মডেলের বাইকগুলোতে ইতিবাচক সাড়া দিয়েছেন এবং আমি নিশ্চিত টিভিএস রেইডারের ক্ষেত্রেও এর ব্যতিক্রম হবে না। বাংলাদেশের জেন জি, টিভিএস-এর পাওয়ার-প্যাকড, স্টাইলিশ এবং সত্যিকারের ‘উইকেড রাইড’ টিভিএস রেইডারের জন্য প্রস্তুত রয়েছে।

 

এসময় জানানো হয়, টিভিএস রেইডারে টিভিএস মোটর কোম্পানির স্বকীয়, অত্যাধুনিক ও যুগোপযোগী ডিজাইনের ধারণা প্রতিফলিত হয়েছে। মোটরসাইকেলটিতে রয়েছে অনন্য ব্যক্তিত্ব এবং বিশেষ লোগো যা এর ধারণাকে করেছে আরও বেশি দৃশ্যমান। শক্তিশালী ও নকশাযুক্ত ফুয়েলট্যাংক টিভিএস রেইডারকে করেছে আবেদনময়ী ও ম্যাসকুল্যার লুকের অধিকারী।

 

একই সাথে দৈনন্দিন ব্যবহারের জন্য এটি একটি স্পোর্টি, পারফেক্ট ও স্মার্ট মোটরসাইকেল। টিভিএস রেইডার-এর সিগনেচার ডিজাইনের স্বতন্ত্র এবং দুর্দান্ত হেডল্যাম্প ও টেইল-ল্যাম্প রাস্তায় চালানোর সময় দারুণ ভিজিবিলিটি দিবে। বিশেষভাবে ডিজাইন করা টেক্সচার এবং এর ফিনিসিংসহ তারুণ্যের রঙের ছটাগুলো এর স্পোর্টি এবং শক্তিশালী ডিজাইনের অবিচ্ছেদ্য অংশ।

 

পারফরম্যান্স: টিভিএস রাইডারে আছে অ্যাডভান্সড ১২৪.৭৬ সিসি এয়ার ও অয়েল কুলড থ্রি-ভ্যাল্ভ ইঞ্জিন যা ৮০০০ আরপিএম-এ সর্বোচ্চ ১২.৯ পিএস শক্তি উৎপাদন করতে সক্ষম ও এটি ৬৫০০ আরপিএম-এ ১১.৫ নিউটর মিটার টর্ক উৎপাদন করতে পারে। এই মোটরসাইকেলে বেস্ট-ইন-ক্লাস অ্যাক্সিলেরেশানে মাত্র ৫.৭ সেকেন্ডে ঘণ্টা প্রতি ০-৬০ কিমি স্প্লিড দিবে। গ্যাস চার্জড ফাইভ স্টেপ অ্যাডজাস্টেবল মনো-শক সাসপেন্সন, স্প্লিট সিট, ফাইভ স্পিড গিয়ারবক্স ও ১৭ ইঞ্চি অ্যালয় চাংকি ওয়াইড টায়ারসের কারণে দারুণভাবে হ্যান্ডলিং করা যায় এই বাইকটি।

 

নিরাপত্তা বিষয়ে জানানো হয়, টিভিএস রেইডারের আর্গোনোমিক্স রেইডারকে বাইক চালানোর সময় কমফোর্ট ও সুবিধার ওপর সর্বোচ্চ প্রাধান্য দিয়ে তৈরি করা হয়েছে। মোটরসাইকেলটিতে টিভিএস মোটর কোম্পনির পারফরম্যান্স মোটরসাইকেল ডিএনএ-র ওপর ভিত্তি করে লং হুইল বেসের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ নিচু আসন দেওয়া হয়েছে যা উচ্চতার ভারসাম্য বজায় রাখে।

 

এর নিখুঁত আর্গোনোমিক্স ট্রায়াঙ্গেল এবং মনো-শক বাইক রেইডকে করে তুলবে অনেক বেশি আরামদায়ক ও আকর্ষণীয়। টিভিএস রেইডারের এক্সস্টের ডিজাইনটিকে স্বকীয় ও নিখুঁতের মেলবন্ধন করা হয়েছে যেহেতু এটি মোটরসাইকেলটির সত্তাকে পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে তুলে ধরে। এর ফার্স্ট-ইন-সেগমেন্ট ফিচারগুলো যেমন প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র রাখার জন্য আন্ডার-সিট স্টোরেজের ব্যবস্থা, হেলমেট রিমাইন্ডার ও ইউএসবি চার্জারের মতো বৈশিষ্ট্যগুলো একটি পরিপূর্ণ রাইডিং অভিজ্ঞতা তৈরি করার জন্য প্রস্তুত। টিভিএস রেইডার আসছে স্ট্রাইকিং রেড, ব্লেজিং ব্লু, উইকেড ব্ল্যাক এবং ফিয়েরি ইয়েলোর মতো বর্ণিল সব রঙ নিয়ে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ :