আজ ৩রা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ :

একটি বাড়ির চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছে ইউপি চেয়ারম্যান

একটি বাড়ির চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছে ইউপি চেয়ারম্যান

স্টাফ রিপোর্টার।
মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলার তন্তর ইউনিয়নের উত্তর গাও গ্রামের মৃত খবিরউদ্দিনে শেখের ছেলে হাজী রনি শেখ ( মুনছর) ৪৫ এর বাড়ি থেকে বের হওয়ার রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন। সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে গত বুধবার ০১-০৬-২২ তারিখে তন্তর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলী আকবর ও তার সহযোগীদের নিয়ে হাজী রনি শেখ ( মুনছর) এর বাড়ি থেকে বের হওয়ার একমাত্র রাস্তা টি ইট দিয়ে ঢালাই করে বন্ধ করে দেয়।স্থানীয় বাসিন্দা নূর হোসেন ঢালির সঙ্গে কথা বলে জানায়ায় বিগত কয়েকদিন যাবত বাড়ির মালিক মুনছর ব্যক্তিগত কাজে দেশের বাহিরে রয়েছেন এরইমধ্যে খালি বাড়িতে গিয়ে রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছে স্থানীয় চেয়ারম্যান।

এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা গেছে বাড়িটিতে যাওয়া আসার জন্য মৃত করম আলী দেওয়ানের ছেলে হুমায়ুন দেওয়ানের কাছ থেকে ৪, ১৮ শতাংশ জায়গা খরিদ করেছেন এই রাস্তাটার জন্যে ১০ বছর আগে সরকারি বরাদ্দের রাস্তাটি নির্মাণ করা হয় সেই রাস্তা টি বন্ধ করে দিয়েছে চেয়ারম্যান আলী আকবর।

এ বিষয়ে তন্তর ইউনিয়ন যুবলীগের প্রচার সম্পাদক মোঃ আসলাম শেখ বলেন,আমাদের এখানে প্রতিহিংসার রাজনীতি শুরু হয়েছে হাজী রনি শেখ মুনছরের বাড়ির রাস্তা বন্ধ করার একমাত্র কারন হলো গত নির্বাচনে মুনছর নৌকার রাজনীতি করেছে কিন্ত নির্বাচনে আনারস প্রতীকে আলী আকবর নির্বাচিত হওয়ায় তিনি এসব কাজ করছেন।আমরা এর সঠিক বিচার দাবী করছি নৌকার রাজনীতি করার কারণে তার রাস্তা বন্ধু করে দেয় নির্বাচিত চেয়ারম্যান।

এ বিষয়ে স্থানীয় এলাকার মোহাম্মদ আলী বলেন,আশেপাশের সব জায়গা পুকুরও হাজী রনি শেখ মুনছরের।তিনি বাড়ি থকে বের হওয়ার জন্য ৪, ১৮ শতাংশ জায়গা খরিদ করেছেন।সেই জায়গায় রাস্তা ও করে দিয়েছেন তৎকালীন জাকির চেয়ারম্যান। কিন্ত তিনি নির্বাচনের পর সব উল্টে দিচ্ছে। এবং দুঃখের বিষয় হলো যার বাড়িতে বর্তমান চেয়ারম্যান দলবল নিয়ে মানুষের চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দিলেন সে বাড়ির মালিক বর্তমানে দেশের বাহিরে।

ভুক্তভোগী হাজী রনি শেখ মুনছর বলেন,বর্তমানে আমি দেশের বাহিরে আছি।আমার অনপুস্থিতিতে আমার বাড়ি থেকে বের হওয়ার রাস্তা বন্ধ করে দেওয়ার কথা শুনে।আমি থানায় অভিযোগ সহ ভিবিন্ন মাধ্যমে তাদের সাথে যোগাযোগ করে বলেছি আমাকে দু একটা দিন সময় দিন আমি দেশে আসলে কাগজ পত্র দেখে একটা মীমাংসা করবো কিন্ত তারা কোন কিছুই মানেনি জোরপূর্বক আমার খালি বাড়িতে এসে স্বয়ং চেয়ারম্যান নিজে তার সহযোগী লোকবল নিয়ে আমাদের চলাচলের রাস্তা ইট দিয়ে বন্ধ করে দিলো।আসলে এগুলো সবই ব্যক্তি আক্রোশে কারন চেয়ারম্যান নির্বাচনে আমি আওয়ামীলীগ প্রার্থীর নির্বাচন করেছিলাম তাই।

এ বিষয়ে তন্তর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলী আকবর বলেন রাস্তা টি বন্ধ করে দিয়েছি তার কারন যখন রাস্তা টি নির্মাণ করেছে তখন রাস্তাটির জোরপূর্বক নির্মাণ করেছেন তৎকালীন সহযোগিতায় অসহায় মানুষের জমি জোরপূর্বক দখল করবে সেটা মেনে নেওয়া যায় না। আমি আমার জায়গা থেকে সম্পূর্ণ সঠিক কাজ করেছে আপনারা ও সঠিক কাজ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ :