আজ ৫ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২০শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ :

প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত দেশ গড়তে আমরা প্রচেষ্টা চালাচ্ছি-মৃণাল

মোঃ সাগর হোসেনঃ

মুন্সীগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস ১৯৭৫ এর ১৫ আগস্ট শহীদদের শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করে বলেছেন, ‘বঙ্গবন্ধু হত্যা কেবল একটি ব্যক্তি বা পরিবারকে হত্যা নয়, তারা চেয়েছিল বাংলাদেশ ও স্বাধীনতাকে হত্যা করতে। কিন্তু তারা জানতো না বঙ্গবন্ধুকে বাংলাদেশ থেকে আলাদা করা যায় না।

 

 

এটি মুদ্রার এপিট আর ওপিঠ। বঙ্গবন্ধু ২৩ বছর লড়াই সংগ্রাম করেছেন। তিনি ধাপে ধাপে জাতিকে প্রস্তুত করেছেন। প্রতিটি আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছেন বঙ্গবন্ধু। তার স্বপ্ন বাস্তবায়নে কাজ করে যাচ্ছেন তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে আমরা নিরন্তর প্রচেষ্টা চালাচ্ছি। তার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন পৃথিবীতে শ্রেষ্ঠত্বের মর্যাদায় আসীন হয়েছে।

শুক্রবার তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭ তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার নলবুনিয়াকান্দি ও পূর্বশীলমান্দি এলাকায় আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল ও গণভোজ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য এসব কথা বলেন।

 

 

 

আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক এমপি মৃণাল কান্তি দাস আরো বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু সারা বিশে^র কথা বলতেন। তিনি পৃথিবীর নির্যাতিত মানুষের কণ্ঠস্বর ছিলেন। তাঁর গ্রহণযোগ্যতা ছিল তুলনাবিহীন। মাত্র সাড়ে তিন বছর রাষ্ট্র ক্ষমতায় ছিলেন। এমন কোনো সেক্টর নেই যেখানে হাত দেননি বঙ্গবন্ধু। একটি যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ অনেক কাজ বাকি ছিল। রাস্তা নাই, কাজ নাই, অবকাঠামো নাই। প্রত্যেকটি সেক্টরকে সাজানোর কাজে হাত দিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু। সকল ক্ষেত্রে তিনি সফল হয়েছিলেন। পাকিস্তান আজকে একটি অকার্যকর ও ব্যর্থ রাষ্ট্র। আর বাংলাদেশ বিশে^ উন্নয়নের রোল মডেল।’

দিনব্যাপী অনুষ্ঠানে তার এসময় উপস্থিত ছিলেন মিরকাদিম পৌরসভার মেয়র হাজী আব্দুস সালাম, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আল-মাহমুদ বাবু, পৌর কাউন্সিলর মকবুল হোসেন, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট গোলাম মাওলা তপন, আওয়ামী লীগ নেতা নুর হোসেন, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সভাপতি হাজী জালালউদ্দিন রুমি রাজন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের আইন বিষয়ক উপ-সম্পাদক আপন দাস, চরকেওয়ার ইউপি সদস্য বজলু রহমান, মোসাম্মৎ তারা বেগম, জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক দ্বীন ইসলাম প্রমুখ।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ :