আজ ৯ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ :

ধীপুরে হঠাৎ মাদবরের হয়রানীর শিকার শিক্ষাথী।। স্থানীয়রা হতাশ

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ

মুন্সিগঞ্জের টঙ্গীবাড়ির ধীপুরে মাদকাসক্ত ও বেকার যুবকরা নিজেরা নিরিহ মানুষদের হয়রানি করে আথিক লাভবান হওয়ার জন্য বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে মারামারি করে পরবতীতে থানা পুলিশকে অবহিত করে ভয়ভীতি দেখিয়ে স্থানীয় বিচারের নামে আথিক সুবিধা নেয়। ১৭ অক্টোবর রাতে ধীপুর মাদ্রাসার শিক্ষক পুত্র শারীরিক অসুস্থতার কারনে ঔষধ কেনার জন্য বেড়ুলে তাকে বকুল তলা সেতুর সামনে একা পেয়ে মারধর করে স্থানীয় মৃত হায়দার আলীর ছেলে। পরে থানায় ফোন দেয় ফিটিং দল।

টঙ্গীবাড়ি থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ রাজিব খান জানান, ধীপুর থেকে জানিয়েছে তারা নাকি এক ছেলে ও মেয়েকে আপত্তিকর অবস্থায় হাতেনাতে ধরেছে। উক্ত সংবাদে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

ধীপুর মাদ্রাসা শিক্ষক এ.কে এম ইউসুফ জানান, আমরা হয়রানির শিকার। ওরা আমার অসুস্থ ছেলেকে মারল আবার পুলিশ দিয়ে হয়রানি করছে। এখন আবার বিচার করতে চাশ।

ধীপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মামুন বেপারি জানান, ধীপুরে মাদকাসক্ত ফিটিংবাজ একটি চিটিং দল সাধারণ মানুষকে হয়রানী করছে।

স্থানীয়রা জানান, ধীপুরে সুমন বেপারী, রনি, মাকসু ও লিটন নিজেরা হঠাৎ মাদবর বনে গেছেন। স্থানীয় মুরব্বিদের সম্মান না করে উশৃংখল এ যুবকরা বিচারের নামে আথিক হয়রানি করছে। এই অপরাধী চক্রটি ইতিপূর্বে একই এলাকার সিরাজুল ইসলামকে হয়রানি করে ৩ লক্ষ টাকার ক্ষতি করে।

স্থানীয় বাসিন্দারা হতাশ হয়ে জানান দুষ্ট চক্রের হয়রানি বন্ধ করবে কে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ :