আজ ২৭শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ :

লৌহজংয়ে জামে মসজিদ কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে হামলা আহত-৬

স্টাফ রিপোর্টার: মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার গাওদিয়া ইউনিয়নে জামে মসজিদ কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে কথা কাটাকাটিতে প্রতিপক্ষের হামলায় ইউপি সদস্যসহ ৬ জন আহত হয়েছে।
আজ শুক্রবার (২৫ নভেম্বর) দুপুরে উপজেলার গাওদিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
এ ঘটনায় আহত ইউপি সদস্য তোবারক ঢালির স্ত্রী মোসাঃ সুরাইয়া বেগম (৩৮) বাদী হয়ে ৫ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা ৮/১০ জনদের বিরুদ্ধে লৌহজং থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। অভিযোগ সূত্রে যানাযায়, ১। মোঃ সিরাজ বেপারী (৫৫), পিতা-পল্টন বেপারী, ২। মোঃ বাবু মোল্লা (৪৫), পিতা-মৃত মন্ত্র মোল্লা, ৩। শিপু বেপারী (৩৬), পিতা জুলহাস বেপারী, ৪। তপন বেপারী (৪২), পিতা মো. হোসেন বেপারী, ৫। আরাফাত (২৫), পিতা-মো. জয়নাল আবেদীন, সর্ব সাং-গাওদিয়া, থানা-লৌহজং, জেলা মুন্সীগঞ্জসহ বিবাদীগণদের সাথে গত গাওদিয়া ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বিরোধ চলিয়া আসিতেছিল। বাদির স্বামী বর্তমানে গাঁওদিয়া ইউনিয়নের ০১ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য। গাওদিয়া বাজার জামে মসজিদের কমিটি ০২ বছর পরপর এলাকার গণমাণ্য ব্যক্তিবর্গদের মতামতের ভিত্তিতে গঠন করা হয়। গাওদিয়া বাজার জামে মসজিদ কমিটি জন্য শুক্রবার দুপুরে উপজেলার গাওদিয়া গ্রামে জনৈক আকরাম শেখের বসত বাড়ীতে এলাকারগণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ সমবেত হয়। এলাকারগণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের আমন্ত্রনে তার স্বামী তোবারক ঢালী (৪৮) উক্ত মিটিং এ উপস্থিত হয়। মিটিং এ বিবাদীগণ সাবেক সভাপতি আকরাম শেখকে মনোনীত করার জন্য সিদ্ধান্ত নিলে এলাকার লোকজনসহ আমার স্বামী আকরাম শেখের মসজিদের কার্যক্রম ভালো ভাবে পরিচালনা করিতে না পারায় তাকে সভাপতি করায় অনিচ্ছা পোষন করে। উক্ত বিষয়ে বিবাদীগণ আমার স্বামীর উপর ক্ষিপ্ত হয়ে আমার স্বামীকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। আমার স্বামী বিবাদীগণদের কে গালিগালাজ করিতে নিষেধ করিলে বিবাদীগণ বেআইনী জনতায় দলবদ্ধ হইয়া বিবাদী মো. সিরাজ বেপারীর হুকুমে বিবাদী মো. বাবু মোল্লার হাতে থাকা কাঁঠের বাটাম দিয়া তোবারক ঢালিকে হত্যার উদ্দেশ্যে মাথায় আঘাত করে। উক্ত আঘাত আমার স্বামীর মাথায় লেগে গুরুতর রক্তাক্ত ফাঁটা জখম হয়। বিবাদী শিপু বেপারী তার হাতে থাকা লোহার রড দিয়া তোবারক ঢালিকে হত্যার উদ্দেশ্যে মাথায় আঘাত করে এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করলে গুরুতর হাড় ভাঙ্গা জখম হয়। তখন তাকে উদ্ধারের জন্য আমার ভাই বিদ্যুৎ (৩২) আগাইয়া আসিলে বিবাদী সিরাজ বেপারী তার হাতে থাকা বাঁশের লাঠি দিয়া আমার ভাইকে এলোপাথারী ভাবে মারপিট করিয়া আমার ভাইয়ের শরীরের বিভিন্নস্থানে নীলা ফুলা জখম করে। আমার ভাই ও স্বামীকে উদ্ধারের জন্য আমার প্রতিবেশী আনিছ (৩৪) আসিলে বিবাদী তপন বেপারী আনিছকে লোহার রড দিয়া হত্যার উদ্দেশ্যে মাথায় আঘাত করে। উক্ত আঘাত আনিছ এর বাম হাতের বাহুতে লেগে হাত ভাঙ্গা জখম হয়। আমার স্বামী ও ভাইদের ডাকচিৎকারে আমার দেবর রনি ঢালী (৩২) আগাইয়া আসিলে বিবাদী তপন ও আরাফাতদ্বয় বাঁশের লাঠি ও কাঠের বাটাম দিয়া এলোপাথারী ভাবে মারপিট করিয়া রনি ঢালীর শরীরের বিভিন্নস্থানে নীলা ফুলা ও রক্তাক্ত কাটা জখম করে। পরবর্তীতে সকল বিবাদীগণ আমার স্বামী, দেবর ও প্রতিবেশী আনিছ এবং ভাই বিদ্যুৎ দের কে এলোপাথারী ভাবে বাঁশের লাঠি, কাঁঠের বাটাম, লোহার রড দিয়া এলোপাথারী ভাবে মারপিট করিয়া শরীরের বিভিন্নস্থানে নীলা ফুলা জখম করে সংবাদ পেয়ে আমার স্বামীর অফিসের পিয়ন আল আমিন (২৮) আগাইয়া আসিলে বিবাদী তপন বেপারী, শিপু বেপারী ও সিরাজ বেপারীগণসহ অজ্ঞাতনামা সকল বিবাদীগণ বাশের লাঠি, লোহার রড ও কাঁঠের বাটাম ইত্যাদি দিয়া আল আমিনকে এলোপাথারী ভাবে মারপিট করিয়া আল আমিনের শরীরের বিভিন্নস্থানে নীলা ফুলা জখম করে। তখন তাদের ডাকচিৎকারে আশে পাশের লোকজন আগাইয়া আসিলে বিবাদীগণ আমার স্বামী ও ভাইদের কে পরবর্তীতে সময় সুযোগ পাইলে খুন জখম করিবে বলিয়া হুমকি প্রদান করে।
আহতদের চিকিৎসার জন্য লোহজং উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়া চিকিৎসা সেবা প্রদান করে।
কর্তব্যরত চিকিৎসক রনি ঢালী ও আনিছকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন ও তেবারক ঢালিকে চিকিৎসার জন্য গেন্ডারিয়া আজগর আলী হাসপাতালে প্রেরণ করেন এবং আল আমিনকে লোহজং উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা সেবা প্রদান করেন।
স্থানীয়রা জানান উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য সিরাজ বেপারী বর্তমান মেম্বার তোবারক ঢালীর সাথে গত ইউপি নির্বাচনে পরাজিত হয়েছিলো এর পর থেকে তাদের সাথে মনমালিন্য ছিলো। পূর্বের জের থেকে এ সিরাজ বেপারীর ইন্দ্রনে এ হালার ঘটনা ঘটেছে বলে তাদের ধারনা।
এ ব্যপারে মো. সিরাজ বেপারীকে তার মুঠোফোনে হামলার বিষয় জানতে চাইলে তিনি বলেন আমার শরীর ভালোনা এখন কিছু বলতে পারবো না আগামীকাল কথা বলবো।
এ বিষয়ে লৌহজং থানার ভারপাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর জানার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। বর্তমান পরিস্থিতি শান্ত আছে। সিরাজ বেপারী গংদের বিরুদ্ধে অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে আইনের আলোকে ব্যবস্থা নেয়া হবে।#

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ :